নোয়াখালীতে মাইক্রোবাস দুর্ঘটনায় শিক্ষকসহ নিহত ২

প্রকাশিত : জুন ৭, ২০২২ , ৬:৫৩ অপরাহ্ণ

নোয়াখালী প্রতিনিধি, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: অফিসের কাজে কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডে যাওয়ার পথে নোয়াখালী-লাকসাম মহাসড়কের পলাইয়া নামক স্থানে মাইক্রোবাস নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে হোটেলে ঢুকে যাওয়ার ঘটনায় স্কুল শিক্ষকসহ ২ জন নিহত হয়েছেন। মঙ্গলবার সকালে এ দুর্ঘটনা ঘটে। দুর্ঘটনায় নিহত শিক্ষক জামাল উদ্দিন(৫২) নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার জিরতলী ইউনিয়নের বড় হোসেনপুর গ্রমের আখন্দ বাড়ির মৃত হারিছ মিয়ার ছেলে ও বেগমগঞ্জ উপজেলার বাংলা বাজার কে.বি ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক আর হোটেল কর্মচারী জাকির হোসেন (৫০) কুমিল্লার লাকসাম উপজেলার পলাইয়া গ্রামের চান মিয়ার ছেলে। এ ঘটনায় আহত হয়েছেন কে.বি ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ইসমাইল হোসেন। তাঁকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা পাঠানো হয়েছে। বেগমগঞ্জ উপজেলার কে.বি ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য হারুনুর রশিদ জানান, মঙ্গলবার সকালে প্রধান শিক্ষক ইসমাইল হোসেন ও সহকারী শিক্ষক জামাল উদ্দিন স্কুলের অফিসের কাজে কুমিল্লা শিক্ষা বোর্ডে যাচ্ছিলেন। তাদের বহনকারী মাইক্রোবাসটি নোয়াখালী-লাকসাম মহাসড়কের পলাইয়া নামক স্থানে পৌঁছলে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে একটি হোটেলে ঢুকে যায়। পরে স্থানীয়রা উদ্ধার করে স্কুলের প্রধান শিক্ষক ইসমাইল হোসেন, সহকারী শিক্ষক জামাল উদ্দিন, হোটেল কর্মচারী জাকির হোসেনকে গুরুতর অবস্থায় লাকসাম জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে গেলে ডাক্তাররা জামাল ও জাকিরকে মৃত ঘোষণা করেন। আর প্রধান শিক্ষক ইসমাইল হোসেনকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। লাকসাম হাইওয়ে থানার ওসি কাইয়ুম উদ্দিন চৌধুরী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, শিক্ষকদের বহনকারী হাইস মাইক্রোবাসটি (ঢাকা-মেট্টো-চ-১৩-১৯১২) পলাইয়া নামক স্থানে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে হোটেলে ঢুকে পড়ে। এতে ঘটনাস্থলে শিক্ষক জামাল উদ্দিন (৫২) ও হোটেল কর্মচারী জাকির নিহত হন। পুলিশ লাশ উদ্ধার করে নিহতদের পরিবারের কাছে হস্তান্তর করেছে। এ ঘটনায় থানায় অপমৃত্যু মামলা হয়েছে বলেও জানান ওসি কাইয়ুম।