পঞ্চগড়ে সংঘর্ষের পর অসুস্থ হয়ে ১ জনের মৃত্যু

প্রকাশিত : ডিসেম্বর ২৪, ২০২২ , ৮:৪৩ অপরাহ্ণ

ডিজার হোসেন বাদশা, নিজস্ব প্রতিনিধি, পঞ্চগড়, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: পঞ্চগড়ে জাতীয়তাবাদী দল বিএনপির গণ সমাবেশের মিছিলে পুলিশের সাথে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় এক বিএনপি কর্মীর মৃত্যু ও ১০ থেকে ১২ জন পুলিশ ও বিএনপি সমর্থকসহ প্রায় অর্ধশতাধিক আহত হয়েছে। এসময় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে রাবার বুলেট ও টিয়ারসেল নিক্ষেপ করে পুলিশ। শনিবার (২৪ ডিসেম্বর) দুপুর ৩টায় পঞ্চগড় শহরে এই ধাওয়া পাল্টা ধাওয়ার ঘটনাটি শুরু হয়। যা প্রায় আড়াই ঘন্টা পর্যন্ত চলে। এর আগে দুপুর ৩টার সময় শহরের দলীয় কার্যালয়ে নেতাকর্মীরা উপস্থিত হতে গেলে পুলিশ তাদের বাঁধা দেয়। এতে দুই পক্ষের মাঝে ইট পাটকের ছোড়া ছুড়ি শুরু হলে পুলিশ এক পর্যায়ে রাবার বুলেট এবং টিয়ারসেল নিক্ষেপ শুরু করে। এতে থমথমে পরিবেশ বিরাজ সৃষ্টি হয় পুরো শহর জুরে। এ ঘটনায় বিএনপি নেতাকর্মীদের দাবী পুলিশের হামলায় ও টিয়ারসেল নিক্ষেপে একজনের মৃত্যু হয়েছে। তবে পুলিশ বলছে এ ঘটনায় কোন কর্মীর মৃত্যু হয়নি। এ্যাড. হাবিব আল আমিন কুদ্দুস, পঞ্চগড় জেলা জাতীয়তাবাদী আইন জীবী সংগঠনের সাংগঠনিক সম্পাদক বলেন আমাদের কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে আজ পঞ্চগড় জেলা বিএনপির গণ সমাবেশে পুলিশ হামলা চালিয়ে এক জনকে মেরে ফেলেছে। পঞ্চগড় পুলিশ সুপার এসএম সিরাজুল হুদা জানান, নিহত ব্যক্তি সমাবেশে এসে অসুস্থ হয়ে পরলে তাকে চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে নেয়া হলে সে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। সে আগে থেকে হার্ট বাইপাস সার্জারি করা ছিলো। তার উপর পুলিশের কোনো হামলার ঘটনা হয়নি।