সিলেটের বানভাসি মানুষদের সহায়তায় অর্থ সংগ্রহ করছে তেঁতুলিয়ার বীর মুক্তিযোদ্ধারা

প্রকাশিত : জুন ২১, ২০২২ , ৮:১৮ অপরাহ্ণ

ডিজার হোসেন বাদশা, পঞ্চগড় জেলা প্রতিনিধি, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: সিলেটের সুনামগঞ্জ, হবিগঞ্জ, নেত্রকোনাসহ উত্তরাঞ্চলে ভয়াবহ বন্যায় ঘর-বাড়ি ডুবে যাওয়া বানভাসি মানুষদের আর্থিক ভাবে সহায়তা করতে বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের পাশাপাশি এবার মাঠে নেমেছেন জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বীর মুক্তিযোদ্ধারা। একবেলা দু’মুঠো খাবারসহ আর্থিক সহায়তায় নিজেদের পাশাপাশি মানুষের দ্বারে দ্বারে গিয়ে টাকা সংগ্রহ করছেন দেশের সর্ব উত্তরের প্রান্তিক জেলা পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়া উপজেলার একদল বীর-মুক্তিযোদ্ধা। মঙ্গলবার (২১ জুন) দুপুরে উপজেলার তেঁতুলিয়া চৌরাস্তা বাজারে এই কার্যক্রম শুরু করেন বীর মুক্তিযোদ্ধারা। এসময় উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার বীর-মুক্তিযোদ্ধা কাজী মাহাবুর রহমান, বীর-মুক্তিযোদ্ধা হাসান আলী মিয়া, বীর-মুক্তিযোদ্ধা নায়েব আলী অর্থ সংগ্রহ শুরু করেন। কার্যক্রমে উপস্থিত থেকে তাদের সহায়তা করেন মুক্তিযোদ্ধার সন্তান কমান্ডের খন্দকার সামসুদ্দোহা নাহিদ, সামজ্জোহা নিয়াজিদ, আবু সাঈদ প্রমুখ। এর আগে গত কয়েকদিন আগে দক্ষিণাঞ্চলের সিলেটের সুনামগঞ্জ, হবিগঞ্জ, নেত্রকোনাসহ উত্তরাঞ্চলে ভয়াবহ বন্যায় ঘর-বাড়ি ডুবে যায়। এতে করে বন্যায় প্লাবিত এসব জেলায় মানুষদের জায়গা হয় স্কুলে কিংবা কোন আশ্রয় কেন্দ্রে। বন্যায় আপন ঘর বাড়ি ছেড়ে আসা মানুষগুলো ভুগছেন খাদ্য সংকটসহ নানা দুর্ভোগে। সেসব বানভাসি ও ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর উদ্যোগে এগিয়ে আসে তেঁতুলিয়া উপজেলার জাতির শ্রেষ্ঠ সন্তান বীর-মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধার সন্তানরা। এ সময় বীর-মুক্তিযোদ্ধারা ও তাদের সন্তানরা নিজেদের কাছ থেকে অর্থ সংগ্রহের পাশাপাশি প্রচার মাইকিংয়ের মাধ্যমে তেঁতুলিয়া উপজেলার আপামর মানুষের কাছে বন্যার্তদের জন্য অর্থ সহযোগিতা চাইছেন। হাটবাজারে দোকানে দোকানে, সুশীল নাগরিক সমাজ, ব্যবসায়ীদের আহবান করছেন বন্যার্তদের পাশে দাঁড়ানোর। অর্থ সংগ্রহ হয়ে গেলে এ অর্থ পৌঁছে দিবেন বন্যাদুর্গত মানুষদের কাছে বলে জানিয়েছেন মুক্তিযোদ্ধারা।