এক জনের মনোনয়ন প্রত্যাহার: চাঁপাইনবাবগঞ্জ ২ ও ৩ সংসদীয় আসনে মোট প্রার্থী ৮ জন

প্রকাশিত : জানুয়ারি ১৫, ২০২৩ , ৭:৪০ অপরাহ্ণ

আশরাফুল ইসলাম, নিজস্ব প্রতিনিধি, চাঁপাইনবাবগঞ্জ, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ ও ৩ সংসদীয় আসনের উপ-নির্বাচনের মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন সদর-৩ আসন হতে একজন মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেছেন। চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনে কেউ মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেননি। এনিয়ে চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনে ৫ জন এবং চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনে ৩ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধীতা করবেন। মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষদিন রবিবার চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের স্বতন্ত্র প্রার্থী তাহারিমা মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার করেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনের উপ-নির্বাচনে রিটার্নিং কর্মকর্তা জেলা প্রশাসক একেএম গালিভ খাঁন। এ আসনে প্রতিদ্বন্ধী তিনজন হলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক এমপি মোঃ আব্দুল ওদুদ, বাংলাদেশ ন্যাশনালিষ্ট ফ্রন্ট (বিএনএফ)’র মনোনীত প্রার্থী কামরুজ্জামান খাঁন ও স্বতন্ত্র প্রার্থী সামিউল হক লিটন। এর আগে মনোনয়ন যাচাই শেষে জেলা জাসদের সাধারণ সম্পাদক মনিরুজ্জামান মনিরের মনোনয়ন বাতিল করে নির্বাচন কমিশন। পরে তিনি আপিল করলে তা খারিজ করে দেন নির্বাচন কমিশন। এ আসনের অপর মনোনয়নপত্র দাখিলকারী জাতীয় পার্টি মনোনীত মোস্তাফিজুর রহমান মুকুলেরও মনোনয়ন বাতিল হলেও তিনি আপিল করেননি। শেষ মেষ চাঁপাইনবাবগঞ্জ-৩ আসনে তিনজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধীতা করবেন। অপরদিকে, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনে কোন প্রার্থী মনোনয়নপত্র প্রত্যাহার না করায় ৫ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্ধীতা করবেন। এ আসনে মোট ৬ প্রার্থী মনোনয়নপত্র দাখিল করে। পরে যাচাই এ স্বতন্ত্র প্রার্থী মোহম্মদ আলী সরকারের মনোনয়ন বাতিল করে নির্বাচন কমিশন। পরে তিনি আপিল করলেও তা খারিজ হয়ে যায়। এ আসনে প্রতিদ্বন্ধীতা করছেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনীত প্রার্থী জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মু. জিয়াউর রহমান, জাতীয় পার্টি মনোনীত মোহম্মদ আব্দুর রাজ্জাক, বাংলাদেশ ন্যাশনালিষ্ট ফ্রন্ট মনোনীত মোঃ নবীউল ইসলাম, জাকের পার্টি মনোনীত মোঃ গোলাম মোস্তফা এবং স্বতন্ত্র প্রার্থী মু. খুরশিদ আলম বাচ্চু। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন, চাঁপাইনবাবগঞ্জ-২ আসনের রিটার্নিং কর্মকর্তা দেলোয়ার হোসেন। সোমবার (১৬ জানুয়ারি) বেলা ১১টায় স্বতন্ত্র প্রার্থীদের প্রতীক বরাদ্দ দেয়া হবে এবং ১ ফেব্রুয়ারি উপ-নির্বাচনের ভোট গ্রহণ।