গরিব ও দুস্থদের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণ করলেন বিজিবি মহাপরিচালক

প্রকাশিত : এপ্রিল ২, ২০২৩ , ৯:৫৪ অপরাহ্ণ

বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)-এর মহাপরিচালক মেজর জেনারেল এ কে এম নাজমুল হাসান, সংগৃহীত চিত্র।

ঢাকা, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি)-এর মহাপরিচালক মেজর জেনারেল এ কে এম নাজমুল হাসান গরিব ও দুস্থ মানুষের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণ করেছেন। তিনি রবিবার বিজিবি’র সদর ব্যাটালিয়নের উদ্যোগে ঢাকার হাজারীবাগে শহিদ শেখ রাসেল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে ৮ শতাধিক গরিব ও দুস্থদের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণ করেন। এ সময় বিজিবি সদর দপ্তরের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা এবং সদর বর্ডার গার্ড ব্যাটালিয়নের অধিনায়কসহ অন্যান্য কর্মকর্তাগণ উপস্থিত ছিলেন। ইফতার সামগ্রী বিতরণ শেষে বিজিবি মহাপরিচালক সাংবাদিকদের বলেন, বর্তমান বৈশ্বিক প্রেক্ষাপট বিবেচনায় প্রধানমন্ত্রী পবিত্র রমজান মাসে সংযম পালন ও কৃচ্ছ্রসাধনের পরামর্শ দিয়েছেন। এরই প্রেক্ষাপটে প্রধানমন্ত্রী এবার গণভবনে ইফতার পার্টি বাদ দিয়েছেন এবং একই সাথে গরিব ও দুস্থদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর এই কৃচ্ছ্রসাধন নীতির সাথে একাত্মতা ঘোষণা করে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশও পিলখানায় ইফতার পার্টি বাতিল করে পুরো রমজান মাসব্যাপী সারা দেশে গরিব, দুস্থ ও অসহায় মানুষের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণের উদ্যোগ গ্রহণ করে। গত ২৬ মার্চ বাংলাদেশের মহান স্বাধীনতা দিবসের শুভক্ষণে সারা দেশে ১০টি শহরে গরিব, অসহায় ও দুস্থদের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণের মাধ্যমে বিজিবি’র এই মহতী কার্যক্রম শুরু হয়। বিজিবি সারা দেশে ৫টি রিজিয়ন, ১৬টি সেক্টর এবং ৫৯টি ব্যাটালিয়নের মাধ্যমে পুরো রমজান মাস ধরে দেশের সীমান্ত এলাকাসহ প্রত্যন্ত অঞ্চলে ইফতার সামগ্রী বিতরণ করে যাচ্ছে। বিজিবি’র উদ্যোগে এ পর্যন্ত ১০ হাজারের অধিক গরিব ও দুস্থদের মাঝে ইফতার সামগ্রী বিতরণ করা হয়েছে। সীমিত সম্পদের মধ্যেও বাহিনীর পক্ষ থেকে গরিব ও দুস্থদের সাথে ইফতার সামগ্রী বিতরণের এই আনন্দ ভাগাভাগি পুরো রমজান মাসব্যাপী অব্যাহত থাকবে বলে তিনি জানান।