আইটি খাতে জাপানি বিনিয়োগ আকর্ষণে ভার্চুয়াল ডেস্ক উদ্বোধন

প্রকাশিত : অক্টোবর ১৩, ২০২২ , ৯:৫০ অপরাহ্ণ

ঢাকা, ব্রডকাস্টিং নিউজ কর্পোরেশন: দেশের আইটি খাতে জাপানি বিনিয়োগ আকৃষ্ট ও দেশীয় আইটি কোম্পানির সাথে জাপানের আইটি কোম্পানির ব্যবসায়িক সম্পর্ক বৃদ্ধিতে একটি ভার্চুয়াল ডেস্ক চালু করেছে সরকার। এ প্ল্যাটফর্ম দু’দেশের ব্যবসায়ীদের সাথে যোগাযোগ ও সম্পর্ক তৈরি এবং ব্যবসার সম্প্রসারণে অনুঘটক হিসেবে কাজ করবে। এর ফলে দেশে জাপানি বিনিয়োগ বৃদ্ধির পাশাপাশি প্রযুক্তি ও বিপিও ব্যবসা সম্প্রসারণের অভূতপূর্ব সুযোগ সৃষ্টি হবে, যা দেশের ডিজিটাল অর্থনীতির বিকাশের পথ সুগম করবে। তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বৃহস্পতিবার ডিজিটাল প্ল্যাটফর্মে প্রধান অতিথি হিসেবে সংযুক্ত হয়ে ‘বাংলাদেশ আইটি কানেক্ট পোর্টাল -জাপান (www. jp.itconnect.gov.bd)’ শীর্ষক এ ভার্চুয়াল ডেস্কের উদ্বোধন করেন। অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশে জাপানের রাষ্ট্রদূত ইতো নাওকি, জাপানে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত শাহাবউদ্দিন আহমেদ, আইসিটি বিভাগের সিনিয়র সচিব এন এম জিয়াউল আলম, স্টার্টআপ বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সামি আহমেদ, জাপান এক্সটারনাল ট্রেড অর্গানাইজেশনের (জিইটিআরও) আবাসিক প্রতিনিধি ইউজি আনডো, ইডিজিই প্রকল্প পরিচালক ড. মোহাম্মদ মেহেদী হাসান এবং বেসিস সভাপতি রাসেল টি আহমেদ। প্রধান অতিথির বক্তৃতায় জুনাইদ আহমেদ পলক ২০৪১ সালের মধ্যে স্মার্ট জাতিতে পরিণত হতে জাপান সরকারের সহযোগিতা কামনা করেন। তিনি বলেন, জাপান বাংলাদেশের গুরুত্বপূর্ণ উন্নয়ন সহযোগী হিসেবে বিভিন্ন খাতে সহযোগিতা করছে। আগামীতে স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণের ক্ষেত্রেও তারা একইভাবে সহযোগিতার হাত প্রসারিত করবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। এ সময় মানুষকে কারিগরি ও প্রযুক্তিভিত্তিক শিক্ষা এবং প্রশিক্ষণে দক্ষ করে তোলার ওপর গুরুত্বারোপ করেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী। তিনি জাপান এবং বাংলাদেশের যৌথভাবে স্কিল ডেভেলপমেন্ট কর্মসূচি গ্রহণের প্রস্তাব করেন এবং এ ব্যাপারে জাপান এক্সটারনাল ট্রেড অর্গানাইজেশনকে (জিইটিআরও) উদ্যোগী ভূমিকা পালনের আহ্বান জানান। ইতো নাওকি বলেন, বাংলাদেশের আইসিটি খাত বিনিয়োগের সম্ভাবনাময় ক্ষেত্র হিসেবে আবির্ভূত হতে চলেছে। এ খাতে জাপানের সহযোগিতার ব্যাপারে আশাবাদ ব্যক্ত করে তিনি বলেন, জাইকা স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণের মাস্টার প্ল্যান তৈরিতে সহযোগিতা করেছে। ভবিষ্যতে এই সহযোগিতা উত্তরোত্তর বৃদ্ধি পাবে।